Tue. Sep 24th, 2019

রঙিন অক্ষর সম্পর্ক

মহুয়া সিংহ রায়

1 min read
Spread the writing

ভালোবাসা না ভ্রম ? জড়িয়ে মিথ্যে সম্পর্কের জালে…
এক পা করে পিছিয়ে গেছি। তুমি বা কই আটকালে ?

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

এইটুকু স্রেফ চাওয়া আমার ক্লান্ত দিনের শেষে,
হাসিমুখের সঙ্গে যেন ক্ষয় ক্ষতি না মেশে।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

এই মেয়েটা একলা আকাশ, অনেকখানি গল্প…
হৃদয় যার সদাই ভেজে, চোখ ভিজেছে অল্প।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

লিখতে গেলে পেন শুধু নয়, শিরদাঁড়াও লাগে…
ভালো মানুষ হয়ে ওঠো, কবি হবার আগে।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
অকপট কবি

নিজের সম্পর্কে কি লিখি বলতো?? এই একটা জায়গায় এসে নিজেকে বড্ড অসহায় বোধ করি। যাই হোক, বলেছিস যখন, লিখতে হবে। সোদপুরে জন্ম, কম্মো, ধম্মো সবটুকু। জন্ম ১৮ই সেপ্টেম্বর, ১৯৭৪। বাবা, মা, আমি আর বোন …এই নিয়ে একটা ছোটো সংসারে মানুষ হয়েছি। মা স্কুল শিক্ষয়িত্রী ছিলেন আর বাবা সরকারী কর্মচারী। লেখাপড়ায় ছোটো থেকেই ভীষণ সিরিয়াস ছিলাম। মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক এর গন্ডি পেরিয়ে কলেজ পাশ করলাম রসায়ন নিয়ে। ব্যাস, তারপর আর পড়াশোনা করতে ভালো লাগে নি। প্রাইমারী টিচার্স ট্রেনিং পাশ করে এখন আমি একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর শিক্ষিকা।
কোনো প্রথাগত শিক্ষা মেনে কবিতা লেখা শুরু করি নি। মনখারাপ থেকে লেখার শুরু মাত্র চার বছর আগে। ফেসবুকে একটু আধটু লিখতাম। কাকাবাবু (ফেসবুক থেকে পরিচিত একজন কাছের মানুষ) খুব উৎসাহ দিতেন। অল্প অল্প করে বিভিন্ন বিষয় এর ওপর লিখতাম। তারপর ধীরে ধীরে বহু মানুষ এর সাথে পরিচয়। আর তাদের অনেকের কাছ থেকেই অনেক কিছু শিখেছি, এমনকি এখনও শিখছি নিয়মিত। ইদানীং টু লাইনার লিখতে ভাল্লাগে, তাই লিখছি। মাঝে মধ্যে বড়ো কবিতা যখন যেমন মনে আসে…!! আপাতত এটুকুই জার্নি। তবে বহু শেখা বাকি। কবিতার বই, আর গল্পের বই ভীষণ ভাবে পড়ি। প্রিয় কবিদের মধ্যে রয়েছেন… রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, শক্তি চট্টোপাধ্যায়, অভীক রায়, শুভঙ্কর দেব, সূর্য সুরেলিয়া, অমিত দিত্তু, অর্ঘদীপ আচার্য, বাউন্ডুলে পার্থ ঘোষ প্রমুখ। আর প্রিয় লেখকদের মধ্যে আছেন… শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, বুদ্ধদেব গুহ, নীললোহিত, সাদাত হোসাইন।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

ভাঙন সেদিন তীব্র ছিলো, তুমি আসার আগে…
আমার অশ্রু মুছলে যেদিন তোমার ঠোঁটের দাগে।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

তোমায় দেখে বুঝতে পারে না লোকে,
চোখের জলও গালেতে ছবি আঁকে।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

তোমার জন্য এক পৃথিবীও লিখতে পারি আমি,
প্রেম নয়। শুধু যন্ত্রণা দিও সত্যিকারের দামী।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°

যে মেয়েটা অভিমানী, নীরব হয়ে পুড়তে জানে-
তার কাছে শিখে নিও, ভালোবাসার আসল মানে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *